নিউজ ডেস্ক

শহীদ জিয়া দেশ ও জাতির ঐতিহাসিক প্রয়োজনে বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন: ডা. শাহাদাত হোসেন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহবায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন, বাংলাদেশের রাজনীতিতে চতুর্থ সংশোধনীর মাধ্যমে এক দলীয় বাকশাল প্রতিষ্ঠা করে যে শূন্যতার সৃষ্টি করা হয়েছিল তার পূরণে দেশবাসীর আকাংখায় বিএনপির অভ্যূদয় হয়েছিল। শহীদ জিয়া দেশ ও জাতির ঐতিহাসিক প্রয়োজনে বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। বিএনপি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে শহীদ জিয়া দেশের রাজনীতিতে গণতন্ত্রের পাশাপাশি এনে দেন জাতীসত্তার পরিচয় বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের। শহীদ জিয়ার উন্নয়ন, উৎপাদন ও গণতান্ত্রিক আদর্শ লালন করেই বিএনপি প্রতিষ্ঠার পর থেকে বার বার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসীন হয়েছে। বিএনপিকে নিয়ে বার বার ষড়যন্ত্র হয়েছে, চক্রান্ত হয়েছে এই দলটিকে ভেঙে ফেলার, ধ্বংস করবার জন্য। কিন্তু কখনোই বিএনপিকে ধ্বংস করতে পারেনি। বিএনপি একটা প্রবাহমান স্রোতস্বীনি নদী, সে বয়ে চলেছে। বিএনপির গতিকে কেউ রুদ্ধ করতে পারেনি।

তিনি শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) সকালে নগরীর ষোলশহর ২নং গেইটস্থ বিপ্লব উদ্যানে বিএনপির ৪৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির পক্ষ থেকে পুস্পস্তবক অর্পণকালে এসব কথা বলেন।

এ সময় চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর বলেন, ১৯৭৫ সালে দেশ ও জাতি যখন চরম দিশেহারা ঠিক সে মূহূর্তে ত্রাণকর্তা হিসেবে জিয়াউর রহমানের আবির্ভাব ঘটেছিল। বিএনপি প্রতিষ্ঠার পর থেকে শুরু হয় দেশের উন্নয়ন ও উৎপাদনের রাজনীতি। দেশে আওয়ামীলীগের গড়া একদলীয় বাকশালের পরিবর্তে চালু হয় বহুদলীয় গণতন্ত্র।

এসময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সি. যুগ্ম আহবায়ক আলহাজ্ব এম এ আজিজ, যুগ্ম আহবায়ক এড. আবদুস সাত্তার, এস এম সাইফুল আলম, নাজিমুর রহমান, কাজী বেলাল উদ্দিন, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, আহবায়ক কমিটির সদস্য এরশাদ উল্লাহ, হারুন জামান, আহমেদুল আলম চৌধুরী রাসেল, আনোয়ার হোসেন লিপু, মো. কামরুল ইসলাম, মহানগর যুবদলের সভাপতি মোশাররফ হোসেন দিপ্তী, সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ শাহেদ, সম্মিলিত পেশাজীবি পরিষদের আহবায়ক সাংবাদিক জাহিদুল করিম কচি, জাসাস কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আমিনুল ইসলাম, চাঁন্দগাও থানা বিএনপির সভাপতি মো. আজম, মহানগর বিএনপি নেতা সিহাব উদ্দিন মোবিন, এড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, আবদুল হালিম স্বপন, মো. ইদ্রিস আলী, আরিফ মেহেদী, আবু মুছা, আলমগীর নুর, আবুল খায়ের, মোস্তাফিজুর রহমান বুলু, মহানগর ছাত্রদলের আহবায়ক সাইফুল আলম, সদস্য সচিব শরিফুল ইসলাম তুহিন, জাসাসের আহবায়ক এম এ মুছা বাবলু, সদস্য সচিব মামুনুর রশীদ শিপন, ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি কাজী শামসুল আলম, ইলিয়াছ চৌধুরী, হাজী মো. মহসিন, ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক হাসান ওসমান চৌধুরী, জিয়াউর রহমান জিয়া, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউর রহমান জিয়া প্রমুখ।

মন্তব্য করুন