নিউজ ডেস্ক

পোশাক শিল্পের জন্য দ্রুততর ও মসৃণ সেবা প্রদান নিশ্চিত করতে হবে: বিজিএমইএ সভাপতি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: পোশাক শিল্পের প্রতিযোগী সক্ষমতা ধরে রাখার জন্য জন্য পরিষেবাগুলোকে আরও দ্রুততর এবং সহজতর করার জন্য কাস্টম হাউসের প্রতি বিজিএমইএ এর আহবান

বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ) এর সভাপতি ফারুক হাসানের নেতৃত্বে বিজিএমইএ এর একটি প্রতিনিধিদল চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের কমিশনার মোহাম্মদ ফাইজুর রহমানের সঙ্গে একটি গুরুত্বপূর্ন বৈঠক করেছেন।

বৈঠকের উদ্দেশ্য ছিল পোশাক শিল্পকে প্রভাবিত করা গুরুত্বপূর্ন কাস্টমস পদ্ধতিগুলো নিয়ে আলোচনা করা এবং কাস্টমস সংক্রান্ত সমস্যাগুলো সমাধান করা।

গতকাল চট্টগ্রামে কাস্টমস হাউজে অনুষ্ঠিত বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, সহ- সভাপতি রাকিবুল আলম চৌধুরী, পরিচালক মোঃ এম. মহিউদ্দিন চৌধুরী, পরিচালক এ.এম. শফিউল করিম (খোকন), পরিচালক এম. এহসানুল হক, সাবেক পরিচালকদ্বয় অঞ্জন শেখর দাস এবং হেলাল উদ্দিন চৌধুরী, বিজিএমইএ স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ট্রেড ফেয়ার এর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন, বিজিএমইএ স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ক্যাশ ইনসেনটিভ এর চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির সেলিম।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন কাষ্টমস হাউজ, চট্টগ্রামের অতিরিক্ত কমিশনার মোঃ জাকির হোসেন, যুগ্ম কমিশনার তফসীর উদ্দিন ভূঁইয়াসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম কাস্টম এজেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি একেএম আখতার হোসেন, সাধারন সম্পাদক কাজী মাহমুদ ইমাম এবং বন্দর বিষয়ক সম্পাদক লিয়াকত আলী হাওলাদার।

বৈঠকে বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান পোশাক শিল্পের জন্য দ্রুততর ও মসৃণ সেবা প্রদান নিশ্চিত করতে কাস্টমস সংশ্লিষ্ট পদ্ধতিগুলো সহজীকরণ এবং সকল বাধা অপসারণের প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দেন।

তিনি জোর দিয়ে বলেন, তীব্র প্রতিযোগিতামূলক বিশ্ব বাজারে প্রতিযোগী সক্ষমতা ধরে রাখার জন্য বাংলাদেশকে অবশ্যই ফ্যাশন শিল্পে লিড টাইম কমাতে হবে।

ফারুক হাসান পোশাক শিল্পের বর্তমান চ্যালেঞ্জগুলো, বিশেষ করে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ ও বিশ্বব্যাপী মুদ্রাস্ফীতির কারনে বৈশ্বিক অর্থনীতিতে যে অস্থির পরিস্থিতি বিরাজ করছে, তার প্রভাবে পোশাকের অর্ডারে মন্দাভাবের বিষয়টিও তুলে ধরেন।

তিনি এই চ্যালেঞ্জিং সময়ে শিল্পের চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলা এবং টেকসই প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত করতে পোশাক শিল্পে সরকারের নীতিগত সহায়তার প্রয়োজনীয়তার উপর জোর দেন।

বিজিএমইএ প্রতিনিধিদল কাস্টমস কমিশনারকে কাস্টমস সংক্রান্ত সেবাগুলো নিয়ে পোশাক রপ্তানিকারকদের বিভিন্ন সমস্যার কথা অবহিত করেন। তারা কাস্টমস কর্তৃপক্ষকে সমস্যাগুলো সমাধান এবং পোশাক শিল্পের জন্য পরিষেবাগুলোকে সহজতর করার জন্য তাৎক্ষনিক পদক্ষেপ গ্রহনের জন্যও আহ্বান জানান।

কাস্টমস কমিশনার প্রত্যুত্তরে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে পোশাক শিল্পের উল্লেখযোগ্য অবদানের কথা স্বীকার করেন বৈঠকে তিনি বিজিএমইএ প্রতিনিধিদলের উদ্বেগের কথাগুলো মনোযোগ সহকারে শ্রবণ করেন এবং কাস্টমস বিষয়ক সমস্যাগুলোর সমাধান এবং পোশাক রপ্তানিকারকদের জন্য কাস্টমস পরিষেবা বাড়ানোর বিষয়ে কাস্টমস হাউজের প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

মন্তব্য করুন