নিউজ ডেস্ক

সরকারের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে, যেন দ্রব্যমূল্য ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকে: মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন মুহুরী

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন মুহুরী বলেছেন, সরকারের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে, যেন দ্রব্যমূল্য ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকে। সামনে রমজান আসছে, এ রমজানে যেন মানুষ স্বস্তির মধ্যে থাকে, সে জন্য সরকারের চেষ্টার পাশাপাশি সকলেরই সহযোগিতা প্রয়োজন। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ আমাদের কাছে অনেক বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে গিয়েছে। বিশেষ করে রোজার আগে ব্যবসায়ীরা যেন দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহযোগিতা করে। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে স্থানীয় প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন যেমন কাজ করবে, তেমনি আমাদের যে ব্যবসায়ী সমিতি আছে তারাও যদি সঠিকভাবে কাজ করে তাহলে দ্রব্যমূল্য মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখা সম্ভব। এছাড়া অন্য যেসব সমস্যা আছে সেগুলো নিয়ে সরকার কাজ করছে।

গতকাল চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের এস রহমান হলে দেশজগত ও নিউজগার্ডেন পরিবারের উদ্যোগে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে করণীয় শীর্ষক আলোচনা ও গুণী সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, আমরা যদি ধর্মীয় আচরণের ব্যাপারে একটু মনোযোগী হই, তাহলে এ মজুদদারী থাকে না ও অতিরিক্ত মুনাফার বিষয়টিও থাকে না। বিশেষ করে রমজান মাসে। রমজান সংযমের সময়। আমরা যেন সব ক্ষেত্রে অর্থাৎ ব্যবসায়ী, ক্রেতাসহ সকলেই যেন সংযম করি।

প্রবীণ সাংবাদিক মো: ইসকান্দর আলী চৌধুরীর সভাতিত্বে, কামরুল হুদা ও নজরুল ইসলামের যৌথ পরিচালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখন দেশ জগতের সম্পাদক কবি মাহমুদুল হাসান নিজামী, আলোচনা করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর ড: সুকান্ত ভট্টচার্য্য। তিনি বলেন, সরকার প্রধান যথেষ্ট আন্তরিক। আমাদের সকলকে সৎ হতে হবে। বর্তমান সরকারের অর্জনগুলো আমাদেরকে মূল্যায়ন করতে হবে। স্বাধীন-স্বার্বভৌম বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠাসহ দেশের মহৎ এবং বৃহৎ অর্জনসমূহ আওয়ামী লীগ এবং আওয়ামী লীগ সরকারের হাত ধরেই অর্জিত হয়েছে। আমাদেরকে সৎ হতে হবে। সৎ সাহস নিয়ে প্রতিবাদ করতে হবেএ অন্যায়কে অন্যায় বলার সৎ সাহস থাকতে হবে। কেউ অন্যায্য কাজ করলে, কেউ দুর্নীতি করলে, সকলে মিলে তাকে বয়কট করতে হবে, তার কাছ থেকে দূরে থাকতে হবে। সবার আগে নিজের ঘর ঠিক করতে হবে। শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মিলে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের গড়ে তুলেন।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের অধ্যাপক এস এম নছরুল কদির বলেন, নিত্যপণ্যের দামের বর্তমান লাগামহীন ঊর্ধ্বগতিতে সব স্তরের মানুষ ভোগান্তিত পড়লেও সীমিত আয়ের মানুষের জন্য তা অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে। গরীব আছে সংকটে আর মধ্যবিত্তরা দিশেহারা। জীবনযাত্রার ব্যয় সংকুলান করার কোনো পথ তারা খুঁজে পাচ্ছে না। আমাদের দেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পায় কারণে অকারণে। কোনো একটি অজুহাত পেলেই নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বাড়িয়ে দেয়া হয়। কখনও রোজা, কখনও ঈদ বা কখনও জাতীয় বাজেট ঘোষণার কারণে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করা এক নিয়মিত ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর এই অশুভ প্রবণতা লক্ষ করে আসছি আমাদের সেই ছোটবেলা থেকে এবং আজও সেই একই ধারা অব্যাহত আছে। বরং বলা যায় যে সেই প্রবণতা এখন বেড়ে গেছে মাত্রাতিরিক্ত হারে।

বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা ফজল আহমদ, সাংবাদিক জাহিদুল করিম কচি, যমুনা টিভির ব্যুরোচীফ জামসেদ চৌধুরী, শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ ড: মুহাম্মদ সানাউল্লাহ, ফুলকলি লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক এম এ সবুর, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক স. উ. ম. আবদুস সামাদ, নাগরিক ফোরামের মহাসচিব কামাল উদ্দিন, বিশিষ্ট কলামিস্ট অধ্যাপক মাসুম চৌধুরী, সাংবাদিক সজল চৌধুরী, কবি কামরুল ইসলাম, দৈনিক আমাদের বাংলার সহ-সম্পাদক এস এ এম নুর হোসাইন, তৃণমূল বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান দীপক পালিত, বিএনপি নেত্রী জান্নাতুল নাঈম চৌধুরী রিকু, প্রজন্ম চট্টগ্রামের প্রধান নির্বাহী চৌধুরী জসীমুল হক।

হামদ পরিবেশন করেন সিনিয়র শিক্ষক মো: মাহবুবুল আলম, গান পরিবেশন করেন লুপর্না মুৎসুদ্দি, কবিতা আবৃত্তি করেন সুলতান আহমদ ও সোমা মুৎসুদ্দী।
বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য নিউজগার্ডেন যাদেরকে স্বীকৃতি প্রদান করেন তারা হলেন মুক্তিযুদ্ধে বীর গেরিলা মুক্তিযোদ্ধা ফজল আহমদ, মরণোত্তর মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ সিরাজুল মোস্তফা, মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াছ, প্রশাসনিক কর্মকান্ডে ব্যবস্থাপনাগত দক্ষতার চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল এন্ড কলেজ’র প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, হেকিমি চিকিৎসাশাস্ত্রে অবদান’র জন্য হাকীম শাহজাদা ইজাজউদ্দীন মুহাম্মদ আজীম খান, সামাজিক ব্যক্তিত্বের জন্য এম এ এন্টারপ্রাইজ’র ম্যানেজিং পার্টনার মোহাম্মদ মনচুর আলী, সাংবাদিকতার জন্য যমুনা টেলিভিশনের ব্যুরো চীফ জামসেদ চৌধুরী, সমাজের বিভিন্ন কর্মকান্ডে অবদানের জন্য আল আমিন হাশেমী ইঞ্জিনিয়ারীং ওর্য়াক্সের এমডি সৈয়দ মোহাম্মদ এমরান, সৎ ও নিষ্ঠাবান কর্মকর্তার স্বীকৃতি স্বরূপ মো: খোরশেদ আলম, বাংলালুক ডিজিটাল এজেন্সির সিইও রোটারিয়ান ফরহাদুল ইসলাম, সূফী জগৎ প্রচার প্রসারে অবদান রাখার জন্য কুসুম আকতর মাইজভান্ডারী।

উপস্থিত ছিলেন কবি সঞ্চয় কুমার দাশ, মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম সাদা, বিএনপির দপ্তর সম্পাদক মো. ইদ্রিস আলী, অধ্যাপক মিনহাজুল হুদা, সাংবাদিক মো: আবদুল নুর চৌধুরী, সাইফুর রহমান সাইফুল, মো: আবু হেনা খোকন, রোকন উদ্দিন আহমেদ, আওরঙ্গজেব সম্রাট, শ্রমিক নেতা রফিকুল ইসলাম, মোজাম্মেল হোসাইন, খোরশেদ আলম বাদামতল, আয়মন ওসমান, অমল কান্তি চৌধুরী, আবির হাসান ইফতি, সংগঠক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, মো: মুসলিম সিকদার, সমাজ কর্মী রফিকুল ইসলাম মোর্শেদ, মো: রিদুয়ানুল হায়দার, মো: ছরওয়ার কামাল, কবি জালাল, মো: আরিফুল কবীর, মো: জাকির হোসেন, কনজ কুমার শীল, রোজী চৌধুরী, সমীর পাল, গিয়াস উদ্দিন, মো: হোসাইন মুন্না, মো: তসলিম, শ্যামল দাশ, মো: সরোয়ার কামাল, মো: জাবেদ হোসেন চৌধুরী, এনজিটিভির ফটিকছড়ি প্রতিনিধি এ. কে. এম. নাজিম উদ্দিন চৌধুরী, ইমরান সোহেল, হারুনর রশিদ, মোহাম্মদ হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার মো: এমরান, আরাফাত আল করিম রিমন, বেবী দাশ মজুমদার নুপুর, মো: মিজানুর রহমান, আমেনা বেগম, ইয়াছমিন আকতার, এস এম শাহানাছ আকতার, এস এম শাহীন আকতার, সৈয়দা শাহনু পারভীন, সৈয়দা শাহনাজ আখতার ফেরদৌসী, জেসমিন আকতার মুক্তা, শহর বানু, সানজিদা আলম, হোসনে আরা বেগম, রুবি আকতার, মনু আকতার, জাহানারা, বানু, মো. আলি আহাম্মদসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

মন্তব্য করুন