নিউজ ডেস্ক

‘রমজান আত্মসংযম, অনুকম্প ও ক্ষমা লাভের মাস’

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবী বিভাগের অধ্যাপক নিজাম উদ্দিন বলেছেন, রমজানে আত্মীয় স্বজন ও মুসলমানরা সবাই একসঙ্গে বসে ইফতার করা আমাদের প্রাচীন ঐতিহ্য। ইফতার মাহফিলগুলোতে সৌহার্দ্য সম্প্রীতির চর্চা ও দ্বীন ধর্ম বিষয়ে নসিহত করা হয়। রমজান আত্মসংযম, অনুকম্প ও ক্ষমা লাভের মাস। এ মাসে ত্যাগ স্বীকারের শিক্ষার মাধ্যমে আত্মার পরিশুদ্ধি ঘটে ও সর্বশক্তিমান আল্লাহর নৈকট্য লাভের সুযোগ হয়। এই মাসের দিবস-রজনীকে আল্লাহতায়ালা খায়ের ও বরকত দ্বারা পূর্ণ করে রেখেছেন। আল্লাহতায়ালা এ মাসকে তাকওয়া অর্জনের অনুশীলন, ইবাদত-বন্দেগি ও আল্লাহর নৈকট্য অর্জনের সব আমলের জন্য ভরা বসন্ত বানিয়েছেন। তাই রমজানের পবিত্রতা রক্ষা করে চলুন, ইনশাআল্লাহ জীবনে বরকত আসবে। দেশে কোরআন সুন্নাহর আলোকে ইনসাফ ভিত্তিক শাসন ব্যবস্থা কায়েম করে স্বাধীনতার সত্যিকার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হবে।

তিনি আজ ২ এপ্রিল (মঙ্গলবার) বিকালে আল-মারচুচ হজ্ব কাফেলার চকবাজারাস্থ নিজস্ব কার্যালয়ে পবিত্র মাহে রমজানের তাৎপর্য ও করণীয় শীর্ষক ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

হজ্ব গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মুহাম্মদ মোরশেদুল আলম’র সভাপতিত্বে ও মুহাম্মদ নেজাম উদ্দীনের পরিচালনায় মাহে রমজানের তাৎপর্য ও করণীয় শীর্ষক ইফতার মাহফিলে বক্তব্য রাখেন, মাওলানা আখতার হোসাইন, আলহাজ্ব মাওলানা সরওয়ার আলম, মাওলানা হারুনুর রশীদ, মাওলানা আবুল বশর ও অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা এমরান হোসেন ইজহার, মাওলানা আবদুল গফুর ও হাফেজ আইয়ুব ওসমান সহ প্রমুখ ব্যক্তিবর্গ।

মন্তব্য করুন