নিউজ ডেস্ক

রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় অন্যায়ভাবে কারাবন্দি করে রেখেছে বেগম জিয়াকে সরকার: মোশাররফ হোসেন দীপ্তি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের সভাপতি মোশাররফ হোসেন দীপ্তি বলেছেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় অন্যায়ভাবে কারাবন্দি করে রেখেছে বেগম জিয়াকে সরকার। তিান আজ অবরুদ্ধ, তাকে রাজনীতি থেকে সরাতেই বিদেশে উন্নত চিকিৎসার সুযোগ দেয়া হচ্ছে না। বেগম খালেদা জিয়ার মেডিকেল বোর্ড বারবার বলছে, দেশে তার চিকিৎসা সম্ভব নয়। তার চিকিৎসার জন্য উন্নত দেশের উন্নত হাসপাতাল দরকার। তিন বারের সফল প্রধানমন্ত্রী, বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া আজ মৃত্যুর মুখোমুখি। সরকারের চাপে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ্যাম্বুল্যান্স ও চিকিৎসা সরঞ্জাম সরবরাহ করছে না। সরকার এভাবে বেগম জিয়াকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ শাহেদ বলেন, বেগম খালেদা জিয়া আজকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আমরা তার আশু রোগমুক্তি কামনা করি। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে প্রেরণ করতে হবে। তার চিকিৎসার অবহেলা হলে সেই দায়ভার সরকারকে বহন করতে হবে।

আজ ২৪ জুন (সোমবার) চট্টগ্রাম মহানগর যুবদল আয়োজিত বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া’র সুস্থতা কামনায় মহান আল্লাহ্ রব্বুল আলামিনের সাহায্য কামনা করে চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের সভাপতি মোশাররফ হোসেন দীপ্তির সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ শাহেদের পরিচালনায় বাদ যোহর আমানত শাহ (রাহঃ) দরগাহে বিশেষ দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন মহানগর যুবদলের সি. সহ সভাপতি ইকবাল হোসেন, নুর আহমেদ গুড্ডু, এস এম শাহ আলম রব, শাহেদ আকবর, ফজলুল হক সুমন, জাহাঙ্গীর আলম, আব্দুল করিম, মো. মুছা, মিয়া মো. হারুন, মুজিবুর রহমান, অরূপ বড়–য়া, মোহাম্মদ আলী সাকি, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসাইন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. এরশাদ হোসেন, সেলিম উদ্দিন রাসেল, মোর্শেদ আলম, হেলাল হোসেন, গুলজার হোসেন, রাজন খাঁন, সহ সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন সাজু, জাফর আহমেদ খোকন, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য মুহাম্মাদ সাগির, ইফতেখার শাহরিয়ার আজম, মো. নুরুল আমিন, মো. ইকবাল, সহ সম্পাদক আতিকুর রহমান, মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু, কোরবান আলী, শাহেদুল ইসলাম শাহেদ, হামিদুল হক চৌধুরী, মেজবাহ উদ্দিন মিন্টু, মো. আবুল কালাম, হাফেজ কামাল উদ্দিন, জাহাঙ্গীর আলম বাবু, হোসেন উজ জামান, সাইদুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আলম মানিক, সদস্য শাবাব ইয়াজদানী, মাহবুব খাঁন জনি, সাইদুল হক সিকদার, আব্দুল করিম, থানা যুবদলের আহবায়ক বজল আহমেদ, মোশাররফ আমিন সোহেল, মো. খোরশেদ, হোসেনে মোবারক রিয়াদ, সদস্য সচিব মনজুরুল আলম মঞ্জু, তাজ উদ্দিন তাজু, এজেএম সোহেল, মো. মুসা, মুশফিকুর রহমান নয়ন, মোর্শেদ কামাল, মো. সেলিম, নাসির উদ্দিন পিন্টু, রিদুওয়ান হোসেন জনি, ওয়ার্ড যুবদলের আহবায়ক মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী, এস এম আলী, মো. আকতার, মো. এস্কান্দার, মো. সাইফুল আলম, মোহাম্মদ হাসান, মো. সাদেক, সোলেমান হোসেন মনা, মো. জাবেদ, আনোয়ার হোসেন, জাবেদ হোসেন, আব্দুল হাকিম, মেহেদী হাসান রানাসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

এসময় শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফেরাত কামনা, বিএনপির চেয়ারপার্সন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার আশু সুস্থতা, দীর্ঘায়ু এবং বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের শারিরীক সুস্থতা ও দীর্ঘায়ু, শহীদ জিয়াউর রহমানের ছোট ছেলে মরহুম আরাফাত রহমান কোকোর রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।
উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (২১ জুন) রাত তিনটায় শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়। বর্তমানে তিনি হাসপাতালটির সিসিইউতে চিকিৎসাধীন। ৭৯ বছর বয়সী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া আর্থ্রাইটিস, হৃদ্রোগ, ফুসফুস, লিভার, কিডনি, ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন জটিলতায় ভুগছেন।

মন্তব্য করুন