নিউজ ডেস্ক

দুটি মারাত্বক দুর্ঘটনায় অলৌকিক ভাবে বেঁচে গেলেন ওরা সাতজন

ডেস্ক নিউজ :

শনিবার ৫ আগস্ট সকালের চট্টগ্রামের পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় সাত যানবাহন যাত্রী অলৌকিক ভাবে বেঁচে গেছে। একটি ঘটনা ঘটে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ড এলাকায়। এখানে একটি প্রাইভেট কার কন্টেইনারবাহী লরির নিচে চাপা পড়ে আহত হয়েছেন গাড়িটির যাত্রীরা। লম্বা লরি নিচে চাপা পড়ে প্রাইভেট কারটি একেবারেই তেঁতলা হয়ে গেলে অলৌকিক ভাবে বেঁচে যায় কারের ভিতর থাকা চারজন।

 

অপর একটি ঘটনা ঘটনা ঘটে চট্টগ্রাম কাপ্তাই সড়কের তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের সামনে। এখানে একটি চলন্ত সিএনজি টেক্সির উপর গাছ উপড়ে পড়ে বেঁচে যায় আরো তিনজন। এই ঘটনায় টেক্সিটির সামনের অংশ ধুমড়েমুছড়ে যায়। আহত চালকসহ তিনজন। প্রত্যক্ষদর্শরা বলেছেন এই দুটি ঘটনায় সকলেই কমবেশি আহত হলেও প্রাণে বেঁযায়। কার-লরির ঘটনায় অলৌকিক ভাবে বেঁচে যাওয়া ব্যক্তিরা হচ্ছেন আবু বক্কর (৪২), মুছা আহমেদ (৬০), আদিলা আক্তার (৬), আদিনা আক্তার (৩)।

 

তারা সকলেই ফটিকছড়ির মাইজভান্ডার এলাকার বাসিন্দা। চট্টগ্রাম বিভাগীয় ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় জনসাধারণ সূত্রে জানা যায় প্রাইভেট কারটি চট্টগ্রামমুখি ছিল, বিপরীত দিক থেকে আসা লরিটি ছিল ঢাকামুখি। কারটি সীতাকুণ্ডের দিক থেকে ফৌজদারহাটের দিকে ঘুরতেই চাপা ঢাকামুখি কন্টেইনারবাহী লরিটির । থাকা কন্টেইনারটি শিকল ছিঁড়ে প্রাইভেট কারের উপর গিয়ে পড়ে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস এসে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

 

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের দায়িত্বরত পুলিশের নায়েক নূরে আলম জানান, আহত অবস্থায় আবু বক্কর ও মুছাকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। তবে তাদের অবস্থা গুরুতর নয়। হাইওয়ে পুলিশের এসআই উজ্জল ঘোষ বলেছেন, দুর্ঘটনার পরপর লরি ও প্রাইভেট কার দুটি জব্দ করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে। কাপ্তাই সড়কের দুঘটনাটি সকালে বৃষ্টির মধ্যে সড়কের পাশের একটি গাছ উপড়ে পড়েছে চলন্ত সিএনজি অটোরিক্সার উপর।

 

এসময় তিনটি বৈদ্যুতিক খুঁটিও ভেঙ্গে পড়ে। বিদ্যুৎ সরবরাহ বিঘ্নিত হয়। প্রায় ৩ ঘন্টা সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। এই ঘটনা ঘটেছে গতকাল শনিবার (৫ আগস্ট)সকাল ৮টার দিকে। পরে পুলিশ ও রাঙ্গুনিয়া থেকে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে গাছ অপসারণ করার পর যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়। প্রত্যক্ষদর্শী, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সাথে কথা বলে জানা যায়, সকাল ৮টার দিকে চট্টগ্রাম(রাউজান) তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাছে এই ঘটনা ঘটে।

 

গাছ চাপায় অটোরিক্সাটি ধুমড়েমুছড়ে যায়, আরোহীরা আহত হয়। স্থানীয়রা গাছের নিচে থাকা অটোরিক্সার ভিতর থেকে চালকসহ তিনজনকে উদ্ধার করে বিভিন্নস্থানে চিকিৎসার জন্য পাঠায়। চুয়েট পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক জয়নাল আবেদীন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বৃষ্টিপাতের মধ্যে গাছটি ভেঙে পন্যবাহী সিএনজি অটোরিক্সার উপর গাড়ীর উপর পড়েছিল।

 

তখন সিএনজিটি শহরমুখি ছিল। সংবাদ পেয়ে রাঙ্গুনিয়ার ফায়ার সার্ভিসসহ আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় ৩ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে গাছটি সড়ক পথ থেকে অপসারণ করলে ১০টার দিকে সড়ক যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়। এই ঘটনায় সিএনজি অটোরিক্সা চালকসহ তিনজন আহত হয়। তাদের স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছেন।

মন্তব্য করুন