নিউজ ডেস্ক

হুব্বা’র গ্যাংস্টার মোশারফ করিম

কখনও দলবল নিয়ে বন্দুক হাতে তিনি পাড়ায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন, কখনও রাতের অন্ধকারে এক মহিলার সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন, কখনও আবার অপরাধ জগতের কাজকর্ম সামলাচ্ছেন। ‘গ্যাংস্টার’ শ্যামলের জীবন ছিল এমনই। হুগলির অপরাধ জগতের অন্যতম নক্ষত্র। এই শ্যামলের জীবনকে কেন্দ্র করে নতুন ছবি ‘হুব্বা’ তৈরি করেছেন পরিচালক ব্রাত্য বসু। ‘ডিকশনারি’র পর আবারও ব্রাত্যের ছবিতে দেখা যাবে অভিনেতা মোশারফ করিমকে।

 

এই ছবিতে অভিনেতার প্রথম ‘লুক’ দেখে চমকে গিয়েছিলেন দর্শক। আনন্দবাজার অনলাইনে দেখা গেল ‘হুব্বা’র প্রথম লুক। আর এই পত্রিকার অনলাইনেই প্রথম বার ‘হুব্বা’ হিসাবে প্রকাশ্যে এলেন অভিনেতা মোশারফ করিম। হুব্বা’র সিনেমার প্রতি পরত যে উত্তেজনা, রোমাঞ্চে ভরপুর, সেই আভাসই দিল ছবির প্রথম ঝলকে। গলায় গাঁদা ফুলের মালা পরে প্রথম বার হুব্বার বেশে মোশারফকে দেখা গিয়েছিল সেই লুকে।

 

ভারতীয় এই বাংলা পত্রিকাটির মতে এই ছবিতে দেখা যাবে বেশ কয়েক জন নাট্যব্যক্তিত্বকেও। আনন্দবাজার অনলাইনকে পরিচালক ব্রাত্য বলেছিলেন, “থ্রিলার এবং কমেডির মিশেলে তৈরি করা হয়েছে এই ছবি। হুব্বা শ্যামল ‘হুগলির দাউদ ইব্রাহিম’ নামেই পরিচিত ছিলেন। খুন, জখম, ড্রাগ পাচারের মতো বহু অপরাধে অপরাধী। অজস্র পুলিশ কেস ছিল তাঁর নামে। এক সময় তিনি ভোটে দাঁড়াতেও চান। যত বারই তাঁকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ, প্রতি বারই জামিন পেয়ে গিয়েছিলেন। ২০১১ সালে বৈদ্যবাটির খালে হুব্বা শ্যামলের মৃতদেহ ভেসে ওঠে। এই ছবির মাধ্যমে আমি পরিবর্তিত রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং অপরাধ জগতের চিত্রই ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছি।” রির্পোট আনন্দ বাজার থেকে সংগ্রহ করা।

মন্তব্য করুন