নিউজ ডেস্ক

পুঙ্খানুপুঙ্খরূপে সুষ্ঠু পূর্ণাঙ্গতদন্ত ও ন্যায্য বিচার’র জন্য প্রধানমন্ত্রীর নিকট আবেদন

আমার ছোট দুই সহোদর ভাইদ্বয়-এর আগামী ১৯(১২)২০২৪ইং দশম শহীদ দিবস। বিগত ১৯(১২)২০১৪ইং দিবাগত রাতে জোঁড়াখুনের ঘটনা সংঘটন-এর , সময়কাল রাতঃ১০:৪৫ মিনিট! চট্টগ্রামসহ সারাদেশব্যাপী বহুল আলোচিত,লোমহর্ষক ও চাঞ্চল্যকর মামলা হিসাবে চিহ্নিত? আমার ছোট দুই সহোদর ভাইদ্বয়-এর জোঁড়াখুনের মামলাটি,জনমনেও করুণভাবে দাগ কেটে স্বীকৃত রয়েছেন! [“চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক”/-“বাংলাদেশ পুলিশ সিকিউরিটি সেল” ও “মাননীয়”, প্রধানমন্ত্রী’র- মনিটরিং সেলভূক্ত!] আমার ছোট সহোদর ভাই দু’টো—- (১)মুহাম্মদ ফরিদুল আলম(“পুলিশী খ্যাত নাম,ওরফে টাইগার ফরিদ) ও (২)মুহাম্মদ আবু বক্কর ছিদ্দিকী (প্রঃ আবু সওদাগর)- {১ম জন,৪নং ওয়ার্ড,”আওয়ামী লীগ”-এর সাবেক সহ-সভাপতি আর রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী!আর অন্যজন,স্বনামধন্য ফার্নিচার ব্যবসায়ী}!! উক্ত জোঁড়াখুন-এর পূঙ্খানুপুঙ্খরূপে সুষ্ঠুভাবে ন্যায্য পূণঃতদন্ত ও ন্যায়বিচার দাবী করছি।।। জোঁড়াখুন-এর বর্বরতম, ন্যাক্কারজনক ও মর্মান্তিক ঘটনা সংঘটন-এর-পেছনকার ভিলেজ-পলিট্টিক্স-বা গ্রাম্য-রাজনীতির অশুভ কূটচাল-এর শিকার-ভাইদ্বয়?

এম,পি’র আর্শীবাদপুষ্ঠ গ্রাম্য-মোড়ল বা মাতব্বর বা মহল্লা কমিটির সভাপতি ,হাইব্রীট আওয়ামী নেতা বউ মার্ডার’শেরু মিঞা’দের অশুভ ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তে” আইনকে স্বঘোষিত খুনী’রা বৃদ্ধা অঙ্গুলী প্রদর্শন করচ্ছে?–
আসামী’রা সকলেই,–
জামাত-শিবির,বি,এন,পি’র চিহ্নিত ক্যাডার, অশিক্ষিত বিভিন্ন সংঘবদ্ধ’চক্রের চিহ্নিত সন্ত্রাসী’রা?

উদাহরণস্বরূপঃ–এই-দেশে আইন-এর দৃষ্টান্তমূলক সুশাসন প্রতিষ্ঠার শুভ লক্ষ্যেই!-শুরুয়াত হউক! – আইনগত সুষ্ঠু পূর্ণাঙ্গতদন্তপূর্ব্বক ন্যায়ঃসঙ্গত-বিচার-এর স্বপক্ষে!—
প্রথমে,শুরু হউক! –আপনার সুদৃঢ় পদক্ষেপ ও হস্তক্ষেপ কামনা করি। —

আমি ও আমার শোকা’হত বনেদী ঐতিহ্যবাহী আওয়ামী পরিবার”বর্গ?–
উল্লেখ্য,এ-মামলাটির এখনও পর্যন্ত সঠিক আইনী ন্যায়সঙ্গত পূর্ণাঙ্গ সুষ্ঠুভাবে- তদন্ত ও ন্যায়বিচার!এখনও কোনো’টা হয় নি বা বিচার পায় নি?
বা প্রশাসনিক পুলিশী দূর্নীতির একমাত্র কারণেই,লাখ-লাখ ক’রে,কোটি-কোটি কালোটাকার ব্যবসা হয়েছে!কিন্তু “যথার্থ আইনগত ন্যায্য বিচার”-এর জন্য মামলার আইনী-যথাযথ প্রমাণিত তথ্যাদি প্রতিফলিত হ’য়ে উঠে নি ?

তাই, বিনীত আবেদন,স্পেশাল পাওয়ার অ্যাক্টে,তিন সদস্যবিশিষ্ট প্রথম শ্রেণীর ম্যাজিষ্ট্রেট- দ্বারায়”জুডিশিয়াল তদন্ত” বা “কাউন্টার টেররজিয়্যাম” অথবা”RAB-‘এর স্বনামধন্য প্রথম শ্রেণীর ম্যাজিস্ট্রেট জনাব সরওয়ার আলম-এর মাধ্যমে সরেজমিনে আইনগত সুষ্ঠু পূণঃতদন্ত ও আইনী বিচার-এর আকুল দাবী জানাচ্ছি???

পূর্ণাঙ্গ সুষ্ঠু তদন্ত-এর কারণ সমূহঃ–

(০১)মাত্র কিছুদিন আগেকার কথা,অবসরে যাওয়ার প্রাক্কালে,–ডি,বি’র অতিরিক্ত এস,পি, কাজল কান্তি চৌধুরী (বড়ুয়া বাবু)
তদন্তকারী কর্মকর্তা’কে,অব্যাহতি’তে অন্য’তরে বন্দর জোনে বদলী হ’য়েও
(ঘুষ-দূনীতি’র বেঁড়াজালে “মামলা’টিকে আঁট’কিয়ে!তড়ি’ঘড়ি ক’রে,বর্তমান,
চার্জশীট’টি ২৩ জন-এর বিরুদ্ধে কোর্টে দাখিল করেন?
(০২)পুলিশ কালো টাকার মোহে,আইনকে
ভিন্নখাতে প্রভাবিত ক’রে–৪ জন,মূল-চিহ্নিত এজাহারভূক্ত আসামীকে চার্জশীটে অর্ন্তভূক্ত করেন নি? পূর্ণরায়,৪ জনকে উক্ত মামলায় অভিযুক্ত ক’রে,অন্তঃভূক্ত করা হউক?
বা উক্ত-মামলার আই,ও–হাইব্রীড ক্ষমতার চাপেরমূখে হউক অথবা কালোটাকার মোহে হউক বা লোভে পড়ে’ বশী’ভূত হ’য়ে হউক! ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তমূলক-চার্জশীট থেকে বাদ ফেলে দেন?
চাক্ষুষ সাক্ষীদের সাক্ষ্য’মতে,প্রকৃত
আসামী’র সংখ্যা হবে!(১৫+৪)=মোট-১৯ জন!

(০৩) প্রকৃত সত্যি পক্ষেঃবলতে গেলে চার্জশীটভূক্তি’তে মামলার মূল আসামী রয়েছে, মাত্র-১৫ জন।

(০৪)আসামীগণ-এর বন-পাহাড়-উজাড় করা বনদূস্য,অবৈধ চোরাই কাঠ ও ইয়্যাবা ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট ফান্ড-এর ২কোটি ৯০ লক্ষ টাকায় হাজারী লেইনস্হ,বেঁড়া মার্কেটের ভেতরে রণধীর মার্কেট-এর পার্শ্বে,-তিনকাঠা জায়গাসহ চারতলা বিশিষ্ট বিল্ডিং খরিদ করিয়ে নেন!
—-আই,ও,কাজল কান্তি চৌধুরী বা তার নিকট আত্মীয়া’র নামে ?

(০৫) আওয়ামী হাইব্রীড ক্ষমতার অসৎ-ব্যক্তিগণের আশ্রয়-ও প্রশ্রয়ে,অশুভ প্রভাব বিস্তারে,-চান্দগাঁও থানা’র বি-টিম্!-এর পুলিশী গ্রীণসিগন্যাল ও সম্পৃক্তা ছিল!}!
(০৬)জোঁড়াখুন-এর ভিকর্টিম ছোটভাইদ্বয়-
এর রক্তমাখা কাপড়-চোপড়-গুলো পর্যন্ত যথাযথভাবে চার্জশীটে লিখিতভাবে উল্লেখ ক’রে নি বা দেখায় নি?

(০৭)চিহ্নিত আসামীগণ-এর স্বপক্ষের ৯/১০ জন আত্মীয়-স্বজনকে,
প্রতারণামূলক,সাজানো মামলায়,
পাবলিক সাক্ষী হিসাবে দেখিয়েছেন ?

(০৮)জোঁড়াখুন-এর তৎ-সময়ে স্হানীয়
চান্দগাঁও থানায় কর্মরত ছিল না?
এমন-পুলিশদেরকে মামলায় সাজানো সাক্ষী হিসাবে দেখিয়েছে?

(০৯)অন্যান্য কম-অপরাধে বাদ দেয়ার উপযোগী সন্দেহজনক নিরাপরাধ আসামীগুলোকে,অবশ্যই,বাদ দেওয়ার
অতীব প্রয়োজনীয়তা ছিল ?
অন্যথায়,আমি বিবেকের তাড়নায়
অপরাধী’তাে হবই? আল্লাহু’র কাছেও চরম অপরাধী হ’তে হবে? না হয়,ঐ-দুনিয়া’য় গিয়ে ঠেকে যাবো এবং আমার ছোটভাই দু’টোর আত্মাও কষ্ট পাবেন? তাই,সর্বপ্রথমে
আল্লাহু’তালার সন্তূষ্টি কামনা করচ্ছি।

(১০) তৎ-সময়ে জোঁড়াখুন-এর ঘটনাস্হল
থেকে সিজার লিস্টে উদ্ধারকৃত!আতঙ্ক ছড়াতে আসামীগণ-,এর ব্যবহ্নত ফেলে
যাওয়া দেশীয় ১টি এল,জি ও ৩টি গুলির খোঁসা/ধাঁরালো রাম’দা/কিরিচ/ছুরি/লৌহার রড় /উদ্ধাকৃত অস্ত্রগুলো চান্দগাঁও পুলিশ জব্দ তালিকায় দেখায় নি?

(১১) জোঁড়াখুন-এর ঘটনা-সংঘটন-
কালীন!–তৎ-সময়ে চান্দগাঁও থানা-পুলিশ প্রশাসনে -দ্বিধাবিভক্তি গ্রুপিং জি’ইয়ে ছিল?
(এ-গ্রুপ)- টিমে নেতৃত্বে ছিল! সৎ ও ভালোমানুষ ও,সি,আবদুর রব/এস,আই,আব্দুল হালিম/এস,আই,নূরুল ইসলাম/এস,আই,আবু বক্কর/এস,আই,নাছিম,/এস,আই,মনির!!
আর অন্য (বি-গ্রুপ)টিমে নেতৃত্বে ছিল– তদন্ত ও,সি,শহীদুল্লাহ্ (সাবেক
আনোয়ারা কলেজের ছাত্রদল-এর জি,এস,চিহ্নিত ক্যাডার সন্ত্রাসী ও মোহেছেন আউলিয়ার খাদেম-এর ছেলে)!

প্রাথমিক তদন্তকারী কর্মকর্তা এস,আই
আরিফুর রহমান(সাবেক ছাত্রদল ক্যাডার,
বর্তমানে,চট্টগ্রাম মেট্রো ডি,বি’র ও,সি,!/আর ঘটনা কেন্দ্রীক সাসপেন্ডকৃত সেকেণ্ড অফিসার আবুল কালাম আজাদ
(বি,এন,পি’র ক্যাডার ও বর্তমানে,জেলা
থানার ও,সি)/ এ,এস,আই,খালেদ (শিবির ক্যাডার,) বর্তমান,পাঁচলাইশ থানার
এস,আই) /এস,আই,রুহুল আমিন
বিএনপি, ক্যাডার)এস,আই,আনোয়ার
(শিবির ক্যাডার)সহ (বি-টিম)এর পুলিশী পুরোপুরি গ্রীণ-সিগন্যাল ছিল?

(১২)তৎ-সময়ে চান্দগাঁও থানা’টি সীমাহীন ঘুষ-দূর্নীতিবাজদের ও টাউট-বাটপারদের আঁখড়ায় পরিণত হয়েছিল? যেমনঃ-চান্দগাঁও থানা কমিউনিটি পুলিশী’র সভাপতি ছিল,গ্রাম্য-মোড়ল,-বউ মার্ডার সরওয়ার আলম(শেরু মিঞা),
সাবেক জামাত নেতা ভাইস চেয়ারম্যান কামাল ইত্যাদি ?

(১৩) ইয়্যাবা ও চোরাই কাঠ ব্যবসায়ী
সিন্ডিকেট থেকে ১০ কোটি টাকার
বৃহত্তর বাজেট-এর চাঞ্চল্যকর জোঁড়াখুন-
এর পেছনকার ইন্ধন জুগিয়ে ছিল?

(১৪) চান্দগাঁও তদন্ত ও,সি,শহীদুল্লাহ্’র ঘুষ-ব্যবসার প্রচার-প্রসারে,কালক্ষেপণে,–
উক্ত তদন্তকার্যক্রমকে আমি চ্যালেঞ্জিং করায়, সি,আই,ডি’তে (প্রহসনমূলক’ হস্তান্তর –প্রথমে,এস,আই,জাহাঙ্গীর (বিএনপি’র ক্যাডার)
যার সাথে সি,আই,ডি অফিসে কয়েকবার হাতাহাতি-মারামারিও হয়! পরবর্তী’তে,কোর্ট নারাজী’তে
এ,এস,পি,অহিদুল আলম(জামাতী নেতা)/
কোর্ট আপীলে নারাজী’তে হস্তান্তর,
পি,বি,আই’র অতিঃরিক্ত এ,এস,পি,কালা মাঈনউদ্দীন /আবারো কোর্ট আপীলে, ডি,বি’র অতিঃরিক্ত এস,পি,কাজল কান্তি চৌধুরী,বর্তমান,চার্জশীট’টি দাখিল করেন।।

(১৫) উপরি’উক্ত দূর্নীতিবাজ কর্মকর্তা”রা
ঘুষ-দূর্নীতি-উৎকোচের বিনিময়ে কয়েক কোটি কালোটাকার নগদ-ব্যবসার লেনদেন হ’য়েছে বা করেছেন? আইনী কোনো উন্নতি হয় নি?

“সরকার”–এখনও পুরোপুরিভাবে প্রশাসন থেকে,-আইনীভাবে বিচার বিভাগ’কে পৃথকঃকরণ করা হয় নি?
“আমার নির্যাতিত পরিবার”টি,আইনী ন্যায়সঙ্গত বিচার না পাওয়ার জন্য পুলিশ প্রশাসন-এর আগাম প্রস্তুতি নেয়া যেন—?”

আর জোঁড়াখুন-এর মামলাটি’ প্রমাণিত করার গুরুত্বপূর্ণ আলামত গুলোও! সঠিক-তথ্যের-ভিত্তি’টি হ-য-ব-র-ল ক’রে,ফেলেছে?

(১৬) আসামীগণ-প্রায় সবাই,স্বাধীনতা বিরোধী জামাত-শিবির-বিএনপি’র চিহ্নিত ক্যাডার,বিভিন্ন গ্রুপ-এর-সংঘবদ্ধ-
সন্ত্রাসীচক্র?অশিক্ষিত বর্ব্বর প্রকৃতির লোক হয়! আর ও্যাঁরা,আবার হাইব্রীড আওয়ামী ক্ষমতার আশীর্বাদপুষ্টও?

বর্তমান,রাষ্ট্রপক্ষে বিজ্ঞ আইনজ্ঞ,স্বনামধন্য আইনজীবি,চট্টগ্রাম মহানগর পি,পি,
অ্যাডভোকেট আবদুর রশিদ এবং আমার নিয়োগপ্রাপ্ত বন্ধুবর,চট্টগ্রাম জেলা এডিশিনাল পি,পি,অ্যাডভোকেট সামশুল আলম ও থানা পুলিশী সমন-এর মাধ্যমে জানিতে পারিলাম যে,আগামী ০৩/০৭/২০২৪ইং-আদালতে জবানবন্দীঃ দেয়ার জন্য হাজিরা’র সমন জারী করেছেন!
এস,টি,মাঃ নং-২৬৬৩/২২ ইং
“তৃতীয় অতিঃরিক্ত মহানগর দায়রা জজ
আদালত,চট্টগ্রাম!

মাননীয়,প্রধানমন্ত্রী’র নিকট বিনীত প্রার্থনা, ” আপা” আইনী সহযোগিতা ও সহানুভূতির শুভদৃষ্টি কামনা করছি।
অতএব,বিনীত প্রার্থনা এই যে,,ভাইদ্বয়-এর
জোঁড়াখুন-এর চিহ্নিত আসামী’রা ?— ভাইদের মতো আমাকেও খুন করার মহা-পরিকল্পনা এঁটেছেন?
বিচার-এর জন্য সাক্ষী সমেত !– আদালতে না যাওয়ার জন্য বিভিন্নভাবে,চিহ্নিত আসামী’রা হুমর্কী-ধমর্কীও-দিচ্ছে?

মাননীয়,প্রধানমন্ত্রী মহোদয়,’গণ-মানুষ-এর জন্যেই,আইন”।নেত্রী “আপা”র দ্রুত হস্তক্ষেপ ও পদক্ষেপ কামনা করচ্ছি!

বিনীত নিবেদক
আপনারই স্নেহধন্য,
“শেখ-রাসেল”-প্রজ্জ্বন্মের সমবয়সী ছোটভাই
মুহাম্মদ মঈনউদ্দীন মহসিন।
পিতাঃ-মরহুম এম,এ,সবুর কন্ট্রাক্টর (চট্টগ্রাম জেলা প্রতিষ্ঠাতা আওয়ামী লীগ-এর সিনিয়র সদস্য ও যুদ্ধকালীন মুক্তিযোদ্ধা সংগঠক। )
সাং- খাজা রোড়, বাদামতল,
থানাঃ–চান্দগাঁও,চট্টগ্রাম।

মোবাইল নং- ০১৭৩৯-৬৩০০৫৩/০১৮১৯-৬৩০০৫৩/
০১৯৭৯-৬৩০০৫৩
GMail :
moinuddinmohsin72@gmail.com

মন্তব্য করুন